সোমবার, ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১০:৩১

শিরোনাম :
বরিশালে স্বচ্ছলরাই পাচ্ছে ঘর ! খোলা আকাশের নিচে মুক্তিযোদ্ধার পরিবার ববি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ৭ দিনের জন্য স্থগিত ববি শিক্ষার্থীদের উপর হামলার ঘটনায় গাড়ি ভাংচুর-অগ্নীসংযোগ বরিশালে অনলাইন নিউজ পোর্টাল ” ঢাকা পোস্ট ” এর শুভ উদ্বোধন মাধবপাশা ইউনিয়নে স্বপন সরদারকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী দক্ষিনাঞ্চলের তিন পৌরসভায় আ’লীগের নিরঙ্কুশ জয় বানারীপাড়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর হলেন তরুন সমাজ সেবক সুমন খান বানারীপাড়া পৌর নির্বাচ‌নে বিএন‌পি-স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোট বর্জন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ‘সহ সম্পাদক’ নির্বাচিত হলেন বরিশালের সন্তান ফাইজুল ইসলাম নিক্সন সজিব টিকা সবাইকে আগে দেই তারপর আমি নেব-প্রধানমন্ত্রী

বরিশালে নারী ইভটিজারকে ছাড়াতে রহস্যে ঘেরা আন্দোলন

dynamic-sidebar

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল নগরীর কাউনিয়া বিসিক শিল্প নগরীতে নারী শ্রমিক উত্তক্তকারী এক সন্ত্রাসী যুবককে ছাড়িয়ে নিতে অচল করে দেয়া হয়েছে গোটা নগরী। আটকের ঘটনাকে ইস্যু করে রাজনৈতিক ফয়দা লুটতে প্রভাবশালী একটি মহল সড়ক ও নৌ পথে অবরোধ সৃষ্টি করে। এর ফলে বরিশাল থেকে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সকল নৌ ও সড়ক পথে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

তারা থানা ঘেরাও করে ঘন্টার পর ঘন্টা পুলিশ সদস্যদের অবরুদ্ধ রেখে ছড়িয়ে নিয়ে যায় সোহাগ ওরফে মাছ সোহাগ নামের ওই যুবককে। পাশাপাশি পুলিশ-প্রশাসনকে জিম্মি করে তাকে ধরিয়ে দেয়া বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি’র বিরুদ্ধে মামলা নিতে বাধ্য করে প্রভাবশালী ওই মহলটি। বিসিক শিল্প নগরী এলাকায় অবরুদ্ধ করে রাখা হয় শিল্প মালিকদের।

 

এদিকে, বুধবার সন্ধ্যার পূর্বে থেকে হঠাৎ করেই একজন বখাটে চাঁদাবাজ ও ইভটিজারের জন্য সড়ক এবং নৌ পথে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে আন্দোলন এবং থানা ঘেরাও করার ঘটনাটি বরিশাল মহানগরী ছাপিয়ে দেশ জুড়ে আলোচনার ঝড় বইছে। একজন নারী উত্তক্তকারী চাঁদাবাজকে ছাড়িয়ে নিতে এতো বড় আন্দোলনের নেপথ্যের কারণ খুঁজে বেরাচ্ছেন তারা।

 

বিসিক শিল্প মালিকরা জানিয়েছেন, ‘বিসিক এলাকায় সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ চলমান রয়েছে। চলমান এই উন্নয়ন থামিয়ে দিতে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল ঠিকাদারের কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে। তবে বিসিক শিল্প সমিতির নেতৃবৃন্দের বাঁধার মুখে চাঁদাবাজ বাহিনকে পিছু হটতে হয়েছে।

শিল্প মালিকরা আরও জানায়, ‘ওই চাঁদাবাজ বাহিনীর অন্যতম সদস্য বিসিক এলাকার বেঙ্গল বেস্টুক সংলগ্নের বাসিন্দা আব্দুল খালেক এর ছেলে সোহাগ। ইতিপূর্বে বিএনপি অনুসারী এই সোহাগ এলাকায় মাছ সোহাগ নামে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে কাউনিয়াসহ বিভিন্ন থানায় নারীদের উত্তক্তের একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

সম্প্রতি তিনি বিসিক শিল্প এলাকায় নারী শ্রমিকদের নানাভাবে উত্তক্ত করে আসছিল। কাজে আসা এবং যাওয়ার সময় নারীদের গায়ের ওরনা এবং হাত ধরে টানা হেচড়াসহ শ্লীলতা হানির ঘটনা ঘটনানোর অভিযোগ রয়েছে। সবশেষ বুধবার সকালেও পূর্বের ন্যায় ফরচুন সুজ এর এক নারী শ্রমিকদের উত্তক্ত করে সোহাগ নামের ওই বখাটে। এসময় অন্যান্য শ্রমিক এবং স্থানীয়রা তাকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

খবরটি ছড়িয়ে পড়লে বিসিক শিল্প নগরীর নারী শ্রমিকদের মধ্যে স্বস্তি ফিরলেও একটি পক্ষ তাকে পুলিশের হাত থেকে ছাড়িয়ে নিতে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করে। তাঁরা পরিকল্পনা অনুযায়ী থানা ঘেরাও এবং নথুল্লাবাদ, রূপাতলী ও নতুন বাজার বাস স্ট্যান্ড থেকে অভ্যন্তরিন সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। এমনকি বরিশাল-ঢাকাসহ অভ্যন্তরিন রুটের লঞ্চ চলাচলও বন্ধ করে দেয় তারা।

স্থানীয়দের অভিযোগ সোহাগ শুধুমাত্র নারী শ্রমিকদের উত্তক্তই করেনি, বরং তার বিরুদ্ধে বিসিক এলাকায় রমরমা মাদক বানিজ্য ও চাঁদাবাজির অভিযোগও করেছেন। তবে তাকে আটকের ঘটনাটিকে কাজে লাগিয়ে ক্ষমতাসিন দলের একটি মহল রাজনৈতিক ফয়দা লুটছে বলে অভিযোগ শিল্প মালিক এবং শ্রমিকদের।

তারা অভিযোগ করেছেন, ‘আটক হওয়া ওই বখাটে এক ছাত্রলীগ নেতার অনুসারী। এ কারণেই ওই নেতার অন্যান্য অনুসারীরা ওই যুবককে ছাড়িয়ে নিতে স্থানীয়দের ব্যবহার করে কাউনিয়া থানা ঘেরাও করে। তারা নগরীর সকল রুটে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে জনসাধারণের মধ্যে ভিতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। এমনকি সকল রুটে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়ে কয়েক হাজার যাত্রী, পথচারী এবং যানবাহন শ্রমিকরা।

এদিকে, আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করেছেন, ‘সোহাগকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এমনকি ওই যুবককে প্রকাশ্যে সর্টগান ঠেকিয়ে হুমকিসহ গালাগাল দেয় বিসিক শিল্প সমিতির এক নেতা। তখন তিনি আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করে বলে অভিযোগ আন্দোলনকারীদের।

বিষয়টি জানতে পেরে ছাত্রলীগ এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকর্মী থানায় গিয়ে সোহাগ নামের ওই যুবককে ছেড়ে দেয়ার জন্য পুলিশের প্রতি চাপ সৃষ্টি করে। এতে থানা পুলিশের কর্মকর্তাদের টলাতে না পেরে থানা থেকে ফিরে আসেন তারা। এর কিছুক্ষণ পরেই স্থানীয় আওয়ামী লীগ এবং ছাত্রলীগসহ সোহাগের এলাকার লোকজন নিয়ে থানা ঘেরও করে বিক্ষোভের পাশাপাশি ফরচুন সুজ এর চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা নেয়ার দাবি জানানো হয়।

এতে কাজ না হওয়ায় পরবর্তীতে ছাত্রলীগ এবং আওয়ামী লীগের কিছু লোকজন নগরীর তিনটি বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে জোরপূর্বক সড়ক অবরোধের মাধ্যমে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। এ কারণে শেষ পর্যন্ত সোহাগ নামের ওই যুবককে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় থানা পুলিশ। এমনকি তাকে ছেড়ে দেয়ার পাশাপাশি শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে তারা।

তবে সোহাগকে আটকের ঘটনাটি এড়িয়ে গিয়ে মহানগরীর কাউনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিমুল করীম বলেন, ‘সোহাগকে বিসিক এলাকায় ধরে নিয়ে মারধর করা হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এই ঘটনায় সোহাগ হাওলাদার বাদী হয়ে থানায় একটি মামলাও করেছেন।

মামলায় বিসিক শিল্প সমিতির সভাপতি ও ফরচুন গ্রুপের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান এবং মো. শফিকুর রহমান ও রবিউল নামের একজনকে নামধারী এবং ১০-১৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। মামলায় সোহাগ অভিযোগ করেছে, ‘আসামিরা সোহাগকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মারধরসহ নির্যাতন করা হয়েছে।

তবে থানায় ঘেরাও বা সড়ক অবরোধের কোন ঘটনা ঘটেনি জানিয়ে থানা পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘একটি মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ভিকটিম মামলা করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং আমরা মামলা নিয়েছি। বাইরে সড়ক অবরোধ, যানবাহন চলাচল বন্ধের কোন ঘটনা ঘটেছে বলে আমার জানা নেই।

 

 

 

সূত্র ……………বিএসএল নিউজ

আমাদের ফেসবুক পাতা


© All rights reserved © 2018 DailykhoborBarisal24.com

Desing & Developed BY EngineerBD.Net

shares