সোমবার, ৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, বিকাল ৩:৪৮

শিরোনাম :
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশে ছাত্রলীগ নেতা নিক্সন সজিবের মানবিক উদ্যোগ আমতলীতে করোনায় কর্মহীন মানুষের মধ্যে চেয়ারম্যানের খাদ্য সহায়তা প্রদান কুয়াকাটা পর্যটন শিল্পে ধস প্রতিদিন লোকসান অর্ধকোটি টাকা জেলা প্রশাসন বরিশালের পক্ষ থেকে কর্মহীন শতাধিক রিক্সা চালকদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ আমতলীতে ৩৫০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তার চাল ডাল বিতরণ বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে করোনা ইউনিটে ২জনের মৃত্যু বরিশালে দুই সাংবাদিককে লাঠিপেটা, তিন পুলিশ সদস্য ক্লোজড বরিশালে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া এক নারী রোগীর মৃত্যু বরিশালে করোনা প্রচারনার ছবি তুলে যাওয়া দুই ফটো সাংবাদিককে ইউএনও’র সামনে পেটাল পুলিশ ছিন্নমূল নগরবাসীকে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আহার প্রদান
বরিশালে অন্যের জমির গাছ কর্তন করলো বিএনপি নেতা : থানায় অভিযোগ

বরিশালে অন্যের জমির গাছ কর্তন করলো বিএনপি নেতা : থানায় অভিযোগ

dynamic-sidebar

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশাল নগরীর ৩০ নং ওয়ার্ড কাশিপুর গণপাড়া এলাকায় প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে ১০ থেকে ১৫টি রেন্ট্রি গাছ কেটে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন মশিউর রহমান নামের এক ব্যক্তি। মশিউর রহমান বাদী হয়ে ৩০ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর খাইরুল মামুন শাহিন (৩৮) পিতা সামস উদ্দিন আহমেদ হাওলাদার,মোঃ মনির হোসেন(৪০) মোঃ নান্নু হাওলাদার(৪৪) মোঃ সোহেল (৩৮) পিতা মৃত চুন্নু হাওলাদারের বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।অভিযোগ ও বাদীর জবানবন্দী সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালে বাদী মশিউর রহমান কাশিপুর এলাকার সাবেক কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা খাইরুল মামুন শাহিনের নিকট থেকে ২৮ শতক জায়গা ক্রয় করেন এবং পরবর্তীতে ক্রয়কৃত মালিক মশিউর রহমান সীমানা নির্ধারণ করে জমিতে আইল স্থাপন করে গাছ রোপণ করে এবং জমিতে ধান আবাদ করে ভোগ দখল করছেন।

জমির মালিক ক্রয়কৃত নিজ সম্পত্তি দীর্ঘদিন যাবত ভোগদখল করে আসলেও হঠাৎ করেই (৯ ফেব্রুয়ারি) রবিবার দুপুর দুইটার দিকে জমিতে প্রবেশ করে আইলে রোপিত ২০-২৫ ফুট দৈর্ঘ্যরে মূল্যবান ১৫টি রেন্ট্রি গাছ কেটে নিয়ে যায় বিএনপি নেতা শাহিন হাওলাদের নেতৃত্বে মনির হোসেন গংরা। তারা জোর পূর্বক গাছগুলো কাটার সময় জমির প্রকৃত মালিক মশিউর রহমান ও তার ভাই পান্না হাওলাদার বাধা প্রদান করলে তাদেরকে অকাত্য ভাষায় গালাগালি করে এবং ঘটনাস্থলে গাছ কাটায় ব্যবহত দা ও কুড়াল দিয়ে তেরে আসেন শাহীনের পরিবারের সদস্যরা। তখন তারা হুমকি ধমকিও প্রদান করতে থাকে।অপরদিকে সুচতুর শাহীন নিজেই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আবার মশিউরকে ফাঁসাতে নিজেই পুলিশে খবর দেয়।ততক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এয়ারপোর্ট থানার এস আই মাইনুল ইসলাম। এ বিষয়ে এয়ারপোর্ট থানার এস আই মাইনুল বলেন,ঘটনাস্থলে আমরা যাওয়ার আগেই কয়েকটি গাছ কাটা হয়ে গেছে।পরবর্তীতে সে সময় গাছ কাটতে নিষেধ করে আসি এবং উভয় পক্ষকে থানায় আসার জন্য বলা হয়েছে।অন্যদিকে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে সাবেক কাউন্সিলর শাহীন বলেন, সমস্যা আমার ভাইয়ের ছেলে সোহেলকে নিয়ে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়াটা খুবই দুঃখজনক। যেহেতূ আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে সেহেতু আমিও আইনি সহায়তা নিব। তিনি আরো বলেন,মশিউর রহমানের কাছে আমি জমি বিক্রই করেছি এ বিষয়টি সত্য।তবে আজকে যে ঘটনার প্রেক্ষিতে আমার বিরুদ্ধে যে সমস্ত তথ্য আপনাদের দিয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। তিনি এও বলেন তাদের বিরুদ্ধেও আমার ভাইয়ের ছেলে সোহেল এয়ারপোর্ট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

আমাদের ফেসবুক পাতা

© All rights reserved © 2018 DailykhoborBarisal24.com

Desing & Developed BY EngineerBD.Net

shares