সোমবার, ৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, বিকাল ৩:১৯

শিরোনাম :
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশে ছাত্রলীগ নেতা নিক্সন সজিবের মানবিক উদ্যোগ আমতলীতে করোনায় কর্মহীন মানুষের মধ্যে চেয়ারম্যানের খাদ্য সহায়তা প্রদান কুয়াকাটা পর্যটন শিল্পে ধস প্রতিদিন লোকসান অর্ধকোটি টাকা জেলা প্রশাসন বরিশালের পক্ষ থেকে কর্মহীন শতাধিক রিক্সা চালকদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ আমতলীতে ৩৫০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তার চাল ডাল বিতরণ বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে করোনা ইউনিটে ২জনের মৃত্যু বরিশালে দুই সাংবাদিককে লাঠিপেটা, তিন পুলিশ সদস্য ক্লোজড বরিশালে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া এক নারী রোগীর মৃত্যু বরিশালে করোনা প্রচারনার ছবি তুলে যাওয়া দুই ফটো সাংবাদিককে ইউএনও’র সামনে পেটাল পুলিশ ছিন্নমূল নগরবাসীকে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আহার প্রদান

কারিগরী ত্রুটিতে ববির ভর্তি প্রক্রিয়া প্রশ্নবিদ্ধ!

dynamic-sidebar

শফিক মুন্সি ::

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ১ম বর্ষের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে ১৩ জানুয়ারি সোমবার থেকে। কিন্তু গত রবিবার মেধাতালিকা প্রকাশের সময় থেকেই নানা বিতর্কে প্রশ্নবিদ্ধ এবারের ভর্তি কার্যক্রম। মনোনীত পাঠ্য বিষয়ের তালিকা প্রকাশে বিলম্ব,প্রথমে ত্রুটিপূর্ণ তালিকা প্রকাশ, মেধা তালিকায় থাকলেও পাঠ্য বিষয় না পাওয়া ইত্যাদি নানা অভিযোগ পাওয়া গেছে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে।প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কারিগরী ত্রুটির কারণেই প্রথমে কিছুটা ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে সংশ্লিষ্ট সবার যা কিনা পরবর্তীতে সমাধান করা হয়েছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য ভুক্তভোগীদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনাও করেছেন ভর্তি পরীক্ষার টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান রাহাত হোসেন ফয়সাল। ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করার মতো নিজস্ব কারিগরী সক্ষমতা না থাকাকেই দায়ী করছেন তিনি।তবে দ্রুততার সঙ্গে শতভাগ স্বচ্ছতার মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ ছাদেকুল আরেফিন।

জানা গেছে, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মনোনীত পাঠ্য বিষয়ের তালিকা প্রকাশ করার সম্ভাব্য তারিখ ছিল গত ১১ জানুয়ারি। কিন্তু সেটা প্রকাশ করা হয় পরদিন রাত দশটার পর। এই বিলম্বিত সময় নিয়েই ভর্তি-ইচ্ছুক এবং বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সকলের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রমের স্বচ্ছতা নিয়ে নেতিবাচক ধারণার জন্ম হয়। এরপর প্রকাশিত তালিকা নিয়েও শুরু হয় ধোঁয়াশা। প্রথমে যে তালিকা প্রকাশ করা হয় তাতে অনেকে পাঠ্য বিষয় পেলেও ভর্তি হতে এসে তারা জানতে পারে কোনো বিষয়ের জন্য তারা মনোনীত হন নি। এ ব্যাপারে টেকনিক্যাল কমিটির দাবি ওয়েবসাইটে সমস্যার কারণে রাতে তারা ভুল তথ্য পেয়েছিলেন।

ভর্তি প্রক্রিয়ার এসব সমস্যার ব্যাপারে রাহাত হোসেন ফয়সাল জানান, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কার্যক্রম পরিচালিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্ভার এবং টেকনিক্যাল টিম এর সহযোগিতায়। সেখানকার প্রধান দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাক্তি ঢাকার বাইরে থাকায় তালিকা প্রকাশে বিলম্ব হয়েছে। অন্যদিকে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের কাছে তালিকা প্রকাশের সম্ভাব্য তারিখ দেওয়া ছিল ১১ জানুয়ারি তাই সেদিন থেকেই তারা ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা করেছে। স্বাভাবিক কারণেই এত মানুষের একসঙ্গে ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টায় সার্ভারে চাপ পড়ে। অতিরিক্ত চাপের দরুন তালিকাগুলো ওয়েবসাইটে আপলোড করার সময়টুকুতে সার্ভারে ত্রুটি দেখা দেয় এবং ঐ সময়টুকুতে কিছু ভুল তথ্য হয়তো অনেকে দেখতে পেয়েছে। তবে পরবর্তীতে সংশোধিত পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত হবার পর থেকে আর কোনো বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয় নি।

এসব বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য প্রফেসর ড.মোঃ ছাদেকুল আরেফিন বলেন, কারিগরী ত্রুটির কারণে কয়েকজন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন উভয়েরই সমস্যা হয়েছে। তবে স্পর্শকাতর এই সমস্যাটি আমরা দ্রুতই সমাধান করতে পেরেছি। নিজেদের কারিগরী সক্ষমতা থাকলে হয়তো এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি এড়ানো যেতো। তাই আগামীবার থেকে ভর্তি প্রক্রিয়ার কারিগরী সহ সকল কার্যক্রম যেন নিজেরাই সম্পন্ন করতে পারি সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আমাদের ফেসবুক পাতা

© All rights reserved © 2018 DailykhoborBarisal24.com

Desing & Developed BY EngineerBD.Net

shares