বৃহস্পতিবার, ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, রাত ৩:৩৭

পিরোজপুরের পরকীয়ার টানে সেনা সদস্যের হাত ধরে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

পিরোজপুরের পরকীয়ার টানে সেনা সদস্যের হাত ধরে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

dynamic-sidebar

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পরকীয়া প্রেমের টানে প্রবাসী স্বামীর টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে সেনা সদস্যের সাথে পালানোর অভিযোগ । স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনতে প্রবাসী স্বামী দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এ ঘটনায় তিনি স্ত্রী ও সেনাবাহিনীর সদস্য প্রেমিকের নামে মঠবাড়িয়া থানায় মামলাও করেছেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার জরিপেরচর গ্রামের হাবিব খানের মেয়ে হামিদা বেগম শিমুর সাথে দক্ষিণ বড় মাছুয়া গ্রামের মৃত আহম্মদ হাওলাদারের ছেলে রুহুল আমিনের প্রায় দুই বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর রুহুল আমিন মালয়েশিয়া চলে যান। স্ত্রী শিমু কখনো বাবার বাড়ি কখনো শ্বশুর বাড়ি বসবাস করতো। রুহুল বিদেশে বসে উপার্যনের টাকা স্ত্রীর কাছে পাঠাতো। এদিকে শিমু মুঠোফোনের মাধ্যমে সেনের টিকিকাটা গ্রামের শাহ-আলম হাওলাদারের ছেলে ঢাকা সেনানিবাসে কর্মরত সেনা সদস্য রবি আহম্মেদ রাব্বির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

আস্তে আস্তে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গভীর আকার ধারণ করে। এর মধ্যে প্রবাসী স্বামী রুহুল আমিনের বাড়িতে আসার দিনক্ষণ ঠিক হয়। এদিকে স্বামী বাড়িতে আসার একদিন আগে গত ১০এপ্রিল রাতে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার নিয়ে ছুটিতে আসা সেনা সদস্যদের হাত ধরে শিমু পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত মালয়েশিয়া প্রবাসী রুহুল আমিন বাদী হয়ে স্ত্রী হামিদা বেগম শিমু ও প্রেমিক সেনা সদস্য রবি আহম্মেদ (২১) কে আসামী করে মামলাটি করেন।

রুহুল আমিন জানান, আমার উপার্যনের সমস্ত টাকা নিয়ে স্ত্রী পালিয়ে গেছে। আমি এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছি। আমার স্ত্রী ফেরত আসলে এখনও আমি তাকে গ্রহণ করবো। কেউ যদি আমার স্ত্রীকে আমার কাছে ফিরিয়ে দিতে পারেন তাহলে তাকে পুরস্কৃত করা হবে। মঠবাড়িয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আব্দুল্লাহ্ জানান, পালিয়ে যাওয়া প্রবাসীর স্ত্রীকে উদ্ধার ও আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

আমাদের ফেসবুক পাতা

© All rights reserved © 2018 DailykhoborBarisal24.com

Desing & Developed BY EngineerBD.Net

shares